সিলেটে গণপিটুনিতে ডাকাত নিহত, গুলিতে আহত ৫ গ্রামবাসী

নিউজ দর্পণ, সিলেট: সিলেটের গোলাপগঞ্জে ডাকাতি শেষে পালানোর সময় এলাকাবাসী গণপিটুনিতে ডাকাত সদস্য নিহত হয়েছেন। এ সময় ডাকাতদলের ছোড়া গুলিতে পাঁচজন আহত হন।

রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) ভোরে উপজেলার ঢাকাদক্ষিণের দত্তরাইল মিশ্রপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত গ্রামবাসীদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে নিহতের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

গুলিবিদ্ধরা হলেন- গোলাপগঞ্জ উপজেলার ঢাকাদক্ষিণের পশ্চিম দত্তরাইল গ্রামের আতিব আলীর ছেলে সাইদুল ইসলাম (৪০), একই গ্রামের মৃত সাহাবুদ্দিনের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (২২), মানোয়ার হোসেন (২৪), বকু মিয়ার ছেলে আরমান আহমদ (৩১) ও মনন আহমদের ছেলে দুলাল আহমদ (২৮)। এছাড়া ডাকাতদের মারধরে পশ্চিম দত্তরাইল মিশ্রপাড়া গ্রামের জ্ঞান সেনের ছেলে দুলাল সেন (৩৯) আহত হয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভোরে পশ্চিম দত্তরাইল মিশ্রপাড়া গ্রামের জ্ঞান সেনের বাড়িতে একদল ডাকাত হানা দেয়। ডাকাতরা বাড়ির বাসিন্দাদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এক হাজার ডলার, নগদ দুই লাখ টাকা, পাঁচ ভরি স্বর্ণালংবার ও মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়।

এলাকায় ডাকাতদলের উপস্থিতি টের পেয়ে স্থানীয়রা ধাওয়া করেন। এ সময় ডাকাতদের ছোড়া গুলিতে পাঁচজন আহত হন। এক পর্যায়ে বাকি ডাকাতরা পালিয়ে গেলেও গ্রামবাসী এক ডাকাতকে ধরে গণপিটুনি দেন। এতে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান।

এ বিষয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুনুর রশীদ চৌধুরী বলেন, ভোরে ডাকাতি শেষে পালানোর সময় স্থানীয় জনতার মারধরে এক ডাকাত মারা গেছেন। ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত অস্ত্র ও লুট করা কিছু মালামাল উদ্ধার হয়েছে। বাকিদের ধরতে পুলিশের একাধিক দল মাঠে কাজ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *