মৃত্যুদন্ডের মধ্যেও ১০ ধর্ষণ

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: দেশজুড়ে মহামারিতে রূপ নিয়েছে ধর্ষণ। এর বিরুদ্ধে দেশব্যাপী চলছে আন্দোলন। প্রতিবাদের মূখে ইতোমধ্যে ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদন্ড করা হয়েছে। এরপরও থেমে নেই ধর্ষণ। গত দুই দিনে দেশে ১০টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।
কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় এক গৃহবধূকে ধর্ষণের পর শাশুড়িকে মারধর করে পালালো আতাউর রহমান (২৪) নামের এক যুবক। গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের পূর্বধনীরাম গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ জানান, দীর্ঘদিন ধরে তার স্বামী কাজের জন্য কুমিল্লায় অবস্থান করছেন। স্বামী বাড়িতে না থাকার সুযোগে আতাউর রহমান প্রায়ই গৃহবধূকে মোবাইল ফোনে কুপ্রস্তাব দিতো। এতে রাজি না হওয়ায় মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে আতাউর কৌশলে দরজা খুলে ওই গৃহবধূর ঘরে প্রবেশ করে। পরে মুখ চেপে ধরে তাকে মারপিট ও ধর্ষণ করে। গৃহবধূর চিৎকার শুনে পাশের লোক এগিয়ে এলে আতাউর পালিয়ে যান। ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজীব কুমার রায় জানান, পূর্বধনীরাম গ্রামে এক গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছে; খবরটি শোনার পরপরই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।
কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ায় শ্বশুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ মামলা করেছেন এক পুত্রবধূ। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কুষ্টিয়া মডেল থানায় ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগে তার শ্বশুর এবং সহযোগিতার অভিযোগে শাশুড়ি ও স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূর অভিযোগ, গত সপ্তাহে শ্বশুর বাবুল জোয়ার্দ্দার প্রথমবার ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে। তখন বিষয়টি পারিবারিকভাবে তার স্বামী নাসিমুল ইসলাম সাগর এবং শাশুড়ি নাসিমা বেগমকে জানানোর পর তারা ওই গৃহবধূকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিতে থাকে এবং এসব কথা কাউকে জানালে হত্যার হুমকিও দেওয়া হয়। তিনি জানান, গত ১১ অক্টোবর সকালে আমাকে দ্বিতীয়বার জোরপূর্বক ধর্ষণ করে শ্বশুর বাবুল জোয়ার্দার। পরে ওই বিষয়টি মাকে জানালে তারা মামলা দায়ের করেন।
নড়াইল : নড়াইলে বাবার সাহসিকতায় শ্লীলতাহানি থেকে রক্ষা পেয়েছে নবম শ্রেণি পড়ুয়া এক ছাত্রী। গভীর রাতে মেয়ের ঘরে হানা দেওয়া সাবেক গৃহশিক্ষক মিঠু বিশ্বাসের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হন বাবা কামরুজ্জামান। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মিঠু বিশ্বাস কুমতলবে নিজ এলাকার দূরবর্তী তুলরামপুরে গিয়ে রাজ ছদ্মনাম নিয়ে ব্যাংক কর্মচারী কামরুজ্জামানের নবম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়ে সায়মার গৃহশিক্ষক হিসেবে নিযুক্ত হন। সেখানে একপর্যায়ে তিনি সায়মাকে নানা কুপ্রস্তাব দিতে শুরু করেন। বিষয়টি সায়মা বাবাকে জানালে মিঠুকে গৃহশিক্ষক থেকে বাদ দেওয়া হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মিঠু কামরুজ্জামানকে মোবাইল ফোনে নানা হুমকি দেওয়া শুরু করেন। একপর্যায়ে গত রবিবার গভীর রাতে কৌশলে সায়মার ঘরে প্রবেশ করে তার শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালান। সায়মার চিৎকার শুনে মেয়েকে রক্ষা করতে ছুটে যান কামরুজ্জামান। এ সময় মিঠু নিজের হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কামরুজ্জামানকে কুপিয়ে জখম করেন। তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে মিঠুকে আটক করে পুলিশে দেয়। এ ঘটনায় সোমবার দুপুরে নড়াইল সদর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।
নোয়াখালী : নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলায় অস্ত্রের মুখে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে আরমান হোসেন লালু (২১) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নারীর ভাই বাদী হয়ে গত ৩ অক্টোবর কবিরহাট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ছয়জনকে আসামি করে মামলা করেন। এর পরই পুলিশ গ্রেফতার করে প্রধান আসামি আরমানকে। মঙ্গলবার ওই ভুক্তভোগী নারী অভিযোগ করেন, প্রধান আসামি আরমানকে গ্রেফতারের পর অন্য ৫ আসামি ও তার সঙ্গীরা ক্ষেপে যায়। তারা হুমকি দেয়, যদি আরমানকে কারাগার থেকে বের করে না দেয়া হয়; তা হলে তাকে কেটে টুকরো টুকরো করে ফেলা হবে। তারা প্রতিদিন ওই নারীর বাড়ি হানা দিয়ে হুমকি দিচ্ছে। মামলার এজাহারে জানা যায়, বিধবা ওই নারী তার বাড়িতে একা বসবাস করতেন। গত কয়েক মাস আগে আরমান তার সহযোগীদের নিয়ে ভিকটিমের বাড়িতে প্রবেশ করে। পরে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে আরমান তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ওই বিধবা নারীকে ধর্ষণ করে। এতে ভিকটিম ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন।
ঠাকুরগাঁও : ঠাকুরগাঁও শহরে একটি হাসপাতালে হওয়া ধর্ষণ ধামাচাপা দেওয়ার ঘটনায় সেখানকার সিজারিয়ান অপারেশনের এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। রোগীর প্রতি হাসপাতালের চিকিৎসকদের অবহেলা ও খামখেয়ালিপনার কারণে এ ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ মৃতের পরিবারের। ওই হাসপাতালের পরিচালক বলছেন, এ ঘটনায় কর্তৃপক্ষ নয়, বরং শুধু চিকিৎসক দায়ী। ঠাকুরগাঁও শহরে ফ্রেন্সস অ্যাপোলো হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে গত সোমবার এ ঘটনা ঘটে। অভিযোগ উঠেছে, হাসপাতালটির ওটি বয় বাসুদেব এবং ম্যানেজার আবুল কাসেম সেখানকার এক শিক্ষানবিস নার্সকে ধর্ষণ করেন। জানা গেছে, শামিয়া আক্তার নামে এক নারী প্রসবজনিত সমস্যা নিয়ে গত সোমবার ফ্রেন্সস অ্যাপোলো হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি হন। পরে সেখানে সিজারিয়ানের মাধ্যমে তার সন্তানের জন্ম হয়। ওই রাতেই হাসপাতালে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। তখন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা রোগীর সেবা বাদ দিয়ে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এ সময় শামিয়া গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। তার স্বামী সাদেকুল ইসলাম বারবার চিকিৎসক ও কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানালেও তারা রোগীর প্রতি অবহেলা ও খামখেয়ালিপনা দেখান। অবস্থার অবনতি হলে শামিয়াকে নিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য মঙ্গলবার দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির উদ্দেশে রওনা হন সাদেকুল। কিন্তু পথেই মৃত্যু হয় তার স্ত্রীর। ফ্রেন্সস অ্যাপোলো হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের একটি সূত্র জানিয়েছে, ওটি বয় বাসুদেব এবং ম্যানেজার আবুল কাসেম যে নার্সকে ধর্ষণ করেছেন, তাকে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে বিষয়টি মীমাংসা করা হয়েছে। এ ব্যাপারে কথা বলতে বাসুদেব ও কাসেমকে কয়েকবার কল করা হলেও তাদের মোবাইল বন্ধ পাওয়া গেছে।
লক্ষ্মীপুর : লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৩) ধর্ষণ মামলায় সুমন (২৬) নামে এক যুবককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে সুমনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন। বুধবার সকালে সুমনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। গত ১১ অক্টোবর উপজেলার চরপাতা ইউপির গাছিরহাট এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। অভিযুক্ত সুমন একই এলাকার দিনমজুর মো. শাহজাহানের ছেলে ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার দর্জি দোকানি। মেয়েটির বাবা কামাল হোসেন জানান, প্রায় এক বছর ধরে তার প্রতিবন্ধী স্কুলপড়ুয়া মেয়েটির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে একই বাড়ির শাহজাহানের ছেলে সুমন। গত ১১ অক্টোবর কৌশলে মেয়েটিকে ঘর থেকে ডেকে সুপারি বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে সুমন। এ সময় বাড়ির অন্য এক লোক ঘটনাটি দেখে সুমন ও মেয়েটিকে হাতেনাতে আটক করে স্থানীয় ইউপি সদস্যকে অবহিত করেন। গত সোমবার দুপুরে মেয়ের বাবা ইউপি চেয়ারম্যানকে অবহিত করলে তিনি সুমনকে গ্রামপুলিশ দিয়ে আটক করে নিজ কার্যালয়ে নিয়ে বসিয়ে রেখে পরে ছেড়ে দেন।
সাভার : সাভারের আশুলিয়ায় এক নারী শ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগে আসলাম সুমন নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার গভীর রাতে আশুলিয়ার ইয়ারপুর ইউনিয়নের জিরাবো নামাপাড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। পুলিশ বলছে, জিরাবো এলাকার (৩০) ওই নারী স্বামী আব্দুল ওয়াহেদকে নিয়ে আসলাম শিকদার নামের এক ব্যক্তির বাড়িতে একটি কক্ষ নিয়ে ভাড়া থাকতো। পরে ওই বাড়ির পাশের রুমের ভাড়াটিয়া যুবক গত ১০ অক্টোবর ওই নারী শ্রমিককে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার রুমে নিয়ে ধর্ষণ করে মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে তাকে ব্লাকমেইলিং করে আসছিলো। পরে গতকাল রাতে ধর্ষণের বিষয়টি জানাজানি হলে ওই নারী আশুলিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ রাতেই ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষণকারী যুবক সুমনকে আটক করে। পরে ধর্ষণের শিকার নারীকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করে।
নরসিংদী : নরসিংদীর মাধবদীতে এক মানসিক ভারসাম্যহীন নারী (৩২) ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। বুধবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার বিকালে মাধবদী থানার মেহেরপাড়া ইউনিয়নের কবিরাজপুর গ্রামে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নির্যাতিতা ওই নারীর ভাবী বাদী হয়ে মাধবদী থানায় অভিযুক্ত ধর্ষক সোলায়মানকে (৩৫) আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত ধর্ষক সোলায়মান মাধবদী থানার কবিরাজপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কাদিরের ছেলে ও ওই গ্রামের একটি গরুর খামারের কর্মচারী। পাঁচদোনা পুলিশ ক্যাম্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপ পরিদর্শক ইউসুফ আহম্মেদ জানান, স্বামী পরিত্যক্তা এক সন্তানের জননী মানসিক ভারসাম্যহীন ওই নারীকে বাড়ির পাশের গরুর খামারের একটি ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে খামারের কর্মচারী সোলায়মান। তিনি বলেন, এ সময় নির্যাতিতা ওই নারীকে খুঁজতে তার ভাবী গরুর ঘরে গেলে নির্যাতিতা ওই নারীকে ফেলে অভিযুক্ত সোলায়মান পালিয়ে যায়। পরে এ ঘটনায় রাতেই মাধবদী থানায় মামলা দায়ের করা হয়। পুলিশ নির্যাতিতা ওই নারীকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে।
বগুড়া : বগুড়ার শেরপুর উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের চমরপাথালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী (১০) কে কয়েকদিন আগে ধর্ষণ করে একই এলাকার বাবলু শেখের ছেলে রাজীব শেখ (৩০)। ভুক্তভোগী ছাত্রীর মা জানান, গেল চার দিন আগে একা পেয়ে তার মেয়েকে ধর্ষণ করে রাজিব। এ ঘটনায় মেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। প্রথমে লোক লজ্জায় কাউকে কোনও কিছু না বলে বিষয়টি গোপন রাখা হয়। এতে করে ধর্ষক রাজীব বেপরোয়া হয়ে ওঠে। মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) বেলা অনুমান ৩টার দিকে বাড়িতে কেউ না থাকায় রাজিব আবারো মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে মেয়ের চিৎকার শুনে রাজিবকে ঘরের দরজা বন্ধ করে আটক করে স্থানীয়রা। পরে রাজীবের আত্মীয়স্বজন রাজিবকে সেখান থেকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এরপর স্থানীয়দের সহায়তায় রাজিবের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। শেরপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজীউর রহমান গণমাধ্যমকে জানান, এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে শেরপুর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়। মামলা দায়েরের পরপরই ওই রাতেই ঘটনায় অভিযুক্ত রাজিব শেখকে উপজেলার জয়লা বটতলা থেকে গ্রেফতার করা হয়।
দিনাজপুর : সম্প্রতি দেশজুড়ে ধর্ষণবিরোধী মানববন্ধন শুরু হলে এতে অংশ নেন বিষ্ণু গোপাল মহন্ত ওরফে বাধনরাজ (১৯)। অথচ গত সোমবার রাতে পুলিশ তাকেই গ্রেপ্তার করেছে ধর্ষণের অভিযোগে। ঘটনাটি ঘটেছে দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলায়। গ্রেফতার বিষ্ণুর বাসা পার্বতীপুর রেলওয়ের সাহেবপাড়া কলোনির টিসি/৮১৩ এলাকায়। তাদের গ্রামের বাড়ি রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার গোপিনাথপুর কামারপাড়া। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ এবং ধর্ষণের অশ্লীল ছবি মোবাইলে ধারণ করে ফেসবুকে ছেড়ে দেওয়ার ঘটনায় পার্বতীপুর রেল থানার পুলিশ সোমবার রাত সাড়ে ১১টায় বিষ্ণু গোপাল মহন্ত নামে ওই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। তাকে মঙ্গলবার দিনাজপুর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *