মিসবাহর ‘ক্ষমতা’ কেড়ে নেয়া হচ্ছে

নিউজ দর্পণ ডেস্ক: আপাতত চাকরিটা বেঁচে গেল। কিন্তু আগের মতো আর ক্ষমতা থাকছে না মিসবাহ উল হকের। দল নির্বাচনে আর নাক গলাতে পারবেন না পাকিস্তান দলের হেড কোচ। আসন্ন দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ থেকেই তার কাছ থেকে সেই ক্ষমতা কেড়ে নেয়া হচ্ছে।

নিউজিল্যান্ড সফরের পারফরম্যান্স বিচার বিশ্লেষণে মঙ্গলবার বসেছিল পাকিস্তানি ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কমিটি। এই সভাতেই মিসবাহকে সরিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হতে পারে, এমন গুঞ্জন ছিল। যদিও আপাতত এতটা কঠোর হয়নি পিসিবি। দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ নাকের ডগায়, তার আগে টিম ম্যানেজম্যান্টে রদবদল করার মতো ঝুঁকি নিতে চায়নি তারা। ২৬ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে সিরিজ। তবে পিসিবির ঘনিষ্ঠ এক সূত্র জানিয়েছে, দল নির্বাচনের ক্ষমতা কেড়ে নেয়া হচ্ছে মিসবাহর। তার বদলে নির্বাচকদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে চূড়ান্ত দল বেছে নেবেন অধিনায়ক বাবর আজম। সূত্রটি জানিয়েছে, ‘হেড কোচ পালন করবেন উপদেষ্টার ভূমিকা। সূত্রটি আরও জানিয়েছে, মিসবাহর চাকরিটা এবারের মতো বেঁচে গেছে মূলত ক্রিকেট কমিটির সদস্য ওয়াসিম আকরাম, উমর গুল আর উরুজ মমতাজের কারণেই। তারা পাকিস্তানের হেড কোচকে সরিয়ে না দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন পিসিবিকে। নিউজিল্যান্ড সফরে পাকিস্তান দলের পারফরম্যান্স মোটেই ভালো ছিল না। শুধু এই সফর নয়, গত ১৪ মাসে মিসবাহ কোচ হিসেবে সাফল্যের দিতে পারেননি। তার কোচিংয়ে পাকিস্তান টানা তিনটি অ্যাওয়ে সিরিজ হেরেছে।

এদিকে নতুন প্রধান নির্বাচক মোহাম্মদ ওয়াসিম শুক্রবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে পাকিস্তান দল ঘোষণা করবেন। তিনি নির্বাচক, অধিনায়ক এবং মিসবাহর সঙ্গে কথা বলে দল চূড়ান্ত করবেন। অর্থাৎ কোচ হিসেবে মিসবাহর মতামত নেয়া হবে ঠিকই, কিন্তু সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা থাকবে না তার। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের জন্য ১৯ জানুয়ারি থেকে বায়ো-বাবলে ঢুকে যাবেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। তার আগে সব ক্রিকেটারের করোনা পরীক্ষা করানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *