বিএসএমএমইইউ থেকে এক বছর পর কারাগারে সম্রাট

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: ক্যাসিনো-কান্ডে গ্রেপ্তার হওয়া ঢাকা মহানগর দণি যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাটকে হাসপাতাল থেকে কারাগারে ফেরত নেওয়া হয়েছে।
গতকাল বুধবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইইউ) হাসপাতাল থেকে সম্রাটকে ঢাকার কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে ফেরত নেওয়া হয়।
ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জ্যেষ্ঠ জেল সুপার (ভারপ্রাপ্ত) সুভাষ কুমার দাশ গতকাল দিবাগত রাত ১২টার দিকে সম্রাটকে কারাগারে ফিরিয়ে নেওয়ার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

সুভাষ কুমার দাশ জানান, সম্রাটকে কারাগারের হাসপাতালে রাখা হয়েছে। কারাগারের কর্মকর্তারা জানান, আজ বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসক কারাগার পরিদর্শনে আসেন। এ সময় তিনি সম্রাটের স্বাস্থ্যের খোঁজখবর নেন। গত বছরের ৬ অক্টোবর সম্রাটকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

গ্রেপ্তারের পর কারাগারে আসার এক দিন পর সম্রাটকে রাজধানীর জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে এক সপ্তাহ থাকার পর সমালোচনার মুখে তাঁকে কারাগারে ফেরত পাঠানো হয়।

গত বছরের ২৪ নভেম্বর কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারের চিকিৎসক ‘বুকে ব্যথা’ জানিয়ে সম্রাটকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন।

চিকিৎসা শেষে সম্রাটকে কারাগারে ফেরত পাঠাতে বিএসএমএমইউকে দফায় দফায় চিঠি দেয় কারা কর্তৃপ। কিন্তু এত দিন তাঁকে কারাগারে ফেরত পাঠানো হয়নি।

এ বিষয়ে বিএসএমএমইউতে সম্রাটের চিকিৎসক চৌধুরী মেসকাত আহম্মেদ একাধিকবার বলেছেন, রোগীর (সম্রাট) যে সমস্যা, তাতে যেকোনো সময় সংকট হতে পারে। বিশেষ করে তাঁর হৃৎস্পন্দনের অনিয়মের কারণে হাসপাতাল থেকে তাঁকে ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে না।

সম্রাটকে গতকাল হঠাৎ করে হাসপাতালের ছাড়পত্র দিয়ে কারাগারে ফেরত নিতে চিঠি পাঠানো হয়। প্রায় এক বছর বিএসএমএমইউ হাসপাতালের কেবিনে শুয়ে-বসে দিন কাটানোর পর গতকাল সম্রাটকে কারাগারে ফেরত নেওয়া হয়।

মাদক ও অস্ত্র আইনে এবং অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। সম্রাটের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য ও অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনে এবং দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) করা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *