বন্যায় নওগাঁয় ১৭টি ইউনিয়নে ৭৬ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত

নিউজ দর্পণ,নওগাঁ: টানা বৃষ্টি ও উজানের ঢলে সৃষ্ট বন্যায় নওগাঁর সাত উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নের ১৮ হাজার ৯৬৮ পরিবার পানিবন্দি হয়েছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ৭৬ হাজার মানুষ। ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে কেউ পুকুরের মাছ, মাঠের ফসল ও ঘরবাড়ি হারিয়ে হয়েছেন নিঃস্ব।

এসব এলাকায় ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হলেও তা পর্যাপ্ত নয় বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্তরা। তবে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর মধ্যে এখন পর্যন্ত ১৩৫ টন চাল, শিশুখাদ্য ও গো-খাদ্য ক্রয় বাবদ মোট ১৪ লাখ ২ হাজার ৫০০ নগদ টাকা এবং এক হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলার ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. কামরুল আহসান।

জানা গেছে, ১৫ জুলাই প্রথম নওগাঁর মান্দায় আত্রাই নদীর বাঁধ ভেঙে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়। এছাড়া পরপর তিনদিনে মান্দা, আত্রাই ও রানীনগর উপজেলার অন্তত সাতটি পয়েন্টে বাঁধ ভেঙে যায়। এতে আত্রাই উপজেলার আটটি ইউনিয়ন, মান্দা উপজেলার চারটি ইউনিয়ন এবং রানীনগর, নওগাঁ সদর, পোরশা, সাপাহার ও মহাদেবপুর উপজেলায় একটি করে ইউনিয়ন প্লাবিত হয়। পানিবন্দি হয়ে পড়ে লক্ষাধিক মানুষ।

জেলা ত্রাণ পুনর্বাসন কর্মকর্তা কামরুল আহসান জানান, বন্যাকবলিত এলাকায় সরকারের ত্রাণ ভাণ্ডার থেকে খাদ্য ও নগদ টাকায় সহায়তা হিসেবে বিতরণ করা হয়। তিনি জানান, জেলায় বন্যার্তদের সহযোগিতায় এখনো ২১৫ টন জিআর কর্মসূচির চাল, জিআর নগদ ৪ লাখ ৯৭ হাজার ৫০০ টাকা এবং ১ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার মজুদ রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *