নিষেধাজ্ঞার সময়ে বাংলাদেশকে অনেক মিস করেছি : সাকিব

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: গত ২৯ অক্টোবর আনুষ্ঠানিকভাবে নিষেধাজ্ঞামুক্ত হয়েছেন সাকিব আল হাসান। সেদিন থেকেই যেকোনো ধরনের ক্রিকেট খেলার অনুমতি রয়েছে তার। তবে করোনাভাইরাসের কারণে কোনো খেলার সূচি না থাকায় এখনও মাঠে ফেরা হয়নি সাকিবের। চলতি মাসের শেষদিকে বিসিবির প্রস্তাবিত টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট দিয়ে মাঠে ফিরতে পারেন তিনি।
তার আগে অনানুষ্ঠানিক কিংবা অপ্রথাগত এক সংবাদ সম্মেলনের ব্যবস্থাই করেছেন সাকিব। নিজের ফেসবুক পেজের মাধ্যমে ভক্ত এবং হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরের মাধ্যমে সাংবাদিকদের কাছ থেকে প্রশ্ন নিয়েছেন তিনি। সেখান থেকে বাছাইকৃত প্রশ্ন নিয়ে এক ভিডিওবার্তার মাধ্যমে সকল প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার।
নিজের ইউটিউব চ্যানেলে সেই ভিডিও আপলোড করেছেন সাকিব। যেখানে ফয়সাল সোহান নামের এক ভক্ত প্রশ্ন করেছিলেন, করোনার কারণে মাঝের সময়টায় খেলা এমনিতেই কম হয়েছে। তবু এর মধ্যে কোনো ক্রিকেট ম্যাচ দেখে আপনার মনে হয়েছে যে, এই সময়টায় আমি মাঠে থাকলে দারুণ হতো?
উত্তরে সাকিব বলেন, সত্যি বলতে কখনও এমন মনে হয়নি। আমি আসলে কখনও ঐভাবে চিন্তা করতে পছন্দ করি না। যেহেতু আমি আগে থেকেই জানতাম যে, এক বছর খেলতে পারব না, তাই এসব নিয়ে খুব একটা চিন্তা করিনি। যখন ম্যাচ হয়েছে দেখার চেষ্টা করিনি। যেহেতু আমি যুক্তরাষ্ট্রে ছিলাম, তাই সময়ের ব্যবধানের কারণে সেভাবে দেখতেও পারিনি। তবে ক্রিকেটের বাইরে থাকলেও আমার সময়টা দারুণ কেটেছে।
গত অক্টোবরে নিষিদ্ধ হওয়ার পরপরই এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে সাকিব তার ভক্তদের আহ্বান জানিয়েছিলেন, তারা (ভক্তরা) যেন সবসময়ের মতো এ কঠিন সময়টায় তার (সাকিব) পাশে থাকেন। সে প্রসঙ্গে এনে আশরাফুল ইসলাম নামে একজন জিজ্ঞেস করেন, ভক্তরা সাকিবের প্রত্যাশা কতটা পূরণ করতে পেরেছে?
এর উত্তর দিতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার তো মনে হয়, একদম হান্ড্রেড পারসেন্ট আমার প্রত্যাশা পূরণ হয়েছে। আমি যেটা চেয়েছিলাম তার চেয়ে বেশি সমর্থন পেয়েছি। দর্শক বলেন, সাংবাদিক বলেন, দেশ ও দেশের বাইরের সকল মানুষ আমাকে অনেক বেশি সমর্থন দিয়েছেন। এখন আবার যখন খেলব, তখন এটাই মনে হবে যে কীভাবে এই ভালোবাসার প্রতিদানটা দিতে পারব।
ভক্তদের করা প্রশ্নের উত্তর দেয়া শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দিতে শুরু করেন সাকিব। প্রথম প্রশ্নটি ছিল, নিষেধাজ্ঞার সময়টা সাকিব সবচেয়ে বেশি কী মিস করেছেন? উত্তরে সাকিব জানিয়েছেন, মূলত বাংলাদেশকেই বেশি মিস করেছেন। তার ভাষ্য, ‘সত্যি কথা বলতে এ সময়ে খুব বেশি কিছু মিস করিনি। অবশ্যই বাংলাদেশকে অনেক মিস করেছি। কারণ বেশিরভাগ সময় দেশের বাইরেই ছিলাম।
গত ১২ মাস সময়ের দিকে তাকালে সাকিবের মাথায় সবার আগে কী আসে? উত্তরে পরিবারের প্রসঙ্গে এনে সাকিব বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, বেশিরভাগই ভালো স্মৃতি। যেহেতু পরিবারের সঙ্গে পুরোটা সময় কাটিয়েছি, তাই পরিবারকে মিস করবো। যখন এমন পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর সুযোগটা আর পাব না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *