ধর্ষণ চেষ্টার বিচার চাইতে নাতনিকে নিয়ে ঢাকায় দাদা, পুলিশ বলছে আসামি ধরা ‘কঠিন’

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: একমাস আগে ঘটে যাওয়া ধর্ষণ চেষ্টার বিচার চাইতে নাতনিকে নিয়ে ঢাকায় এসেছেন দাদা। তিনি বলেন, এ বিষয়ে মামলা করা হলেও পুলিশের কোনও তৎপরতা দেখা যায়নি এক মাসে।
আজ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসকাবের সামনে দাদা-নাতনি দাঁড়িয়ে এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চান। আর পুলিশ বলছে, আসামি একজন হওয়ায় তাকে ধরা কঠিন।

শিশুটির দাদা বলেন, ‘আমার নাতনি (৮) কাস টু তে পড়ে। আমার ছেলে প্রবাসী। তার বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ হওয়ায় সে আমার কাছেই থাকে। আমার এক প্রতিবেশী ভাতিজা শামিম ভুইয়া গত সেপ্টেম্বর মাসের ৩ তারিখ দুপুরে আমার নাতনিকে আম-পেয়ারার লোভ দেখিয়ে বাড়ি থেকে নিয়ে যায়। পরে তাকে একটি কাঁকরোলের টালে নিয়ে তার মুখ চেপে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় আমার ছোট বোন বিষয়টি দেখে এগিয়ে গেলে ধর্ষণের চেষ্টায়কারী শামীম পালিয়ে যায়। এরপর নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে নাতনির চিকিৎসার ব্যবস্থা করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ বিষয়ে নরসিংদীর শিবপুর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করি। কিন্তু গত এক মাসে পুলিশের প থেকে অভিযোগকারীকে গ্রেফতার করার কোনও তৎপরতা দেখা যায়নি। তাই বাধ্য হয়ে এখানে এসেছি।

এ বিষয়ে মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা শিবপুর মডেল থানার সাব-ইন্সপেক্টর আলমগীর হোসেন বলেন, ‘তদন্ত চলছে। আসামি পলাতক আছে বলে গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না। বাকি কার্যক্রম ঠিকমতোই চলছে। মামলার আসামি একজন হওয়ায় ধরা একটু টাফই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *