ঠাকুরগাঁওয়ে নিখোঁজ স্কুলছাত্রীর লাশ মিলল নদীতে

নিউজ দর্পণ, ঠাকুরগাঁও : ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় নিখোঁজ এক স্কুলছাত্রীর মরদেহ নদী থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।
আজ রোববার ভোরে উপজেলার চাড়োল ইউনিয়নের পরদেশীপাড়ার তিরনই নদী থেকে ওই স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
নিহতের নাম স্বপ্না দাস। নিহত স্বপ্না ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার মধুপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী। সে একই এলাকার বিন দাসের মেয়ে। এর আগে গত শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে এ ছাত্রী নিখোঁজ হয়।
ওই ছাত্রীর দুলাভাই রাজকুমার দাস জানান, শ্যালিকা স্বপ্না দাস মাছ রান্নার জন্য মাকে সাহায্য করছিল। এর একপর্যায়ে টয়লেটে যাওয়ার কথা বলে সে রান্নাঘর থেকে বের হয়। এর পর সে আর ঘরে ফেরেনি। টয়লেটের সামনে তার পায়ের জুতা ও পানির পাত্রটি পড়েছিল। অনেক খোঁজ করেও তার সন্ধান মেলেনি। অবশেষে বাড়ির পাশে তিরনই নদীতে তার মরদেহ পাওয়া যায়।
চাড়োল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান দীলিপ কুমার চ্যাটার্জি বলেন, গ্রামবাসীর মধ্যে কেউ কেউ বলছেন, মেয়েটিকে জিন বাড়ি থেকে নিয়ে গিয়ে নদীতে ডুবিয়ে রেখে মেরে ফেলেছে। তবে বিষয়টি পুলিশ দেখছে।
অন্যদিকে স্বপ্নার মা আসন্তা দাস ও বাবা রবিন দাসের দাবি, তার মেয়ের স্বাভাবিক মৃত্যু হয়নি। তাকে হত্যা করা হয়েছে।
মধুপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুর রশিদ বলেন, ছাত্রী হিসেবে স্বপ্না ভালো ছিল। তার এভাবে মৃত্যু হবে তা কোনোভাবে মেনে নেয়া যায় না। বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি আবদুস সবুর বলেন, তদন্ত করার পর স্বপ্নার মৃত্যুর রহস্য উদ্ঘাটন হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *