জিয়ার খেতাব বাতিলের প্রতিবাদে বুধবার বিএনপির সমাবেশ ও বিক্ষোভ

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বীর উত্তম’এর খেতাব বাতিলের সরকারি অপচেষ্টার প্রতিবাদে আগামী বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারি বরিশাল বিভাগ বাদে দেশের সকল মহানগর ও জেলায় প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভের ঘোষণা করেছে বিএনপি।

শনিবার বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটির এক ভার্চুয়াল সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভায় দেশে বিদ্যমান আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। দলের অনুষ্ঠিত এই সভায় সর্বসম্মতিক্রমে যেসব প্রস্তাব ও সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়Ñতার অন্যতম হলো:
সভায় স্বৈরতন্ত্র ও মাফিয়াতন্ত্রের পতনের দাবীতে এবং মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তম’এর খেতাব বাতিলের সরকারি অপচেষ্টার প্রতিবাদে আগামী বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারি বরিশাল বিভাগ বাদে দেশের সকল মহানগর ও জেলায় প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠানের কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়। পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী অনুযায়ী আগামী বৃহস্পতিবার ১৮ ফেব্রুয়ারি বরিশাল সদরে আয়োজিত সভায় বরিশাল বিভাগের সকল জেলা বিএনপি ও অঙ্গ দল সমূহকে যোগদানের আহ্বান জানানো হয়।

ক) মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী বছরের প্রথমেই দেশ, দেশের সরকার প্রধান এবং দেশের গৌরব ও মর্যাদার প্রতীক এক স্পর্শকাতর প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে বিশ^খ্যাত সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরায় প্রচারিত অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে উত্থাপিত অভিযোগসমূহের বিশ^াসযোগ্য ও যুক্তিগ্রাহ্য জবাব না দিয়ে বিষয়টিকে রাজনৈতিক ও ষড়যন্ত্রমূলক বলে এড়িয়ে যাওয়ার সরকারি অপচেষ্টার নিন্দা জানিয়ে সভায় এই অভিমত ব্যক্ত করা হয় যে, দেশের নাগরিক সমাজ এবং দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, সংগঠন, সংবাদপত্রে বিষয়টি নিয়ে যেসব উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠা প্রকাশ করা হয়েছে তার প্রেক্ষিতে দেশের ভাবমূর্তী সুরক্ষা ও কল্যাণ নিশ্চিত করার স্বার্থে অনতিবিলম্বে মাফিয়া গোষ্ঠীকে সহায়তাসহ রিপোর্টে উত্থাপিত তথ্যাদি ও অভিযোগ সমূহের যুক্তগ্রাহ্য জবাব তথ্য প্রমাণসহ উপস্থাপন করা সরকারের দায়িত্ব। এই দায়িত্ব পালনে অক্ষমতা কিম্বা ব্যর্থতা শুধু সরকারের অপরাধ প্রমান করবেনাÑ দেশের স্বার্থ ও ভাবমূর্তির অপূরণীয় ক্ষতি হবে।
খ) সভায় আল-জাজিরায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে ক্ষুব্ধ জনগণের দৃষ্টি আচ্ছন্ন ও বিভ্রান্ত করার লক্ষ্যে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, প্রকাশনা সম্পাদক সাবেক এমপি হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ নেতা-কর্মীদের ভূঁয়া অভিযোগে কারাদন্ড প্রদান এবং মহান স্বাধীনতার ঘোষক, দেশের শ্রেষ্ঠতম মুক্তিযোদ্ধা, প্রথম সেক্টর ও ফোর্সেস কমান্ডার,
বহুদলীয় গণতন্ত্র পূণ: প্রতিষ্ঠাকারী এবং সমৃদ্ধ বাংলাদেশের রূপকার শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের বীর উত্তম খেতাব কেড়ে নেয়ার সরকারী অপচেষ্টার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ‘জামুকার’ সভায় এখতিয়ার বহির্ভূত ও অযাচিতভাবে এমন প্রস্তাব গ্রহণের জন্য দায়ীদেরকে অবশ্যই একদিন জনতার কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে বলে দৃঢ়মত ব্যক্ত করা হয়।
গ) সভায় দেশের ভাবমূর্তী ও স্বার্থহাণিকর কর্মকান্ড, দুর্নীতি-অনাচার ও মাফিয়াতন্ত্রকে পৃষ্ঠপোষকতা এবং শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তমের খেতাব কেড়ে নেয়ার অপচেষ্টার মত ধৃষ্টতা প্রদর্শন ও বিরোধীমত দমনের মাধ্যমে গণতন্ত্রের শেষ চিহ্ন পর্যন্ত মুছে দেয়ার লক্ষ্যে সরকারী স্বৈরাচারী অপচেষ্টার প্রতিবাদে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী পালনে সন্ত্রাসী কায়দায় বাধাদান, মানববন্ধন কর্মসূচীতে আক্রমন চালিয়ে কেন্দ্রীয়, মহানগর ও অঙ্গ দলের সিনিয়র নেতৃত্বসহ শতাধিক বিএনপি নেতা-কর্মীকে আহত করা, সিনিয়র বিএনপি নেতৃবৃন্দসহ শত শত নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে অনেককেই কারাগারে প্রেরণ এবং অজ্ঞাত আসামী বলে সারা দেশে বিএনপি ও অঙ্গ দল সমূহের নেতা-কর্মীদের হয়রানী করায় তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়ে দেশ ও দেশের জনগণের স্বার্থ রক্ষায় চলমান আন্দোলন অব্যহত রাখার দৃঢ় সংকল্প ব্যক্ত করা হয়। সভায় মিথ্যা মামলাগুলো প্রত্যাহার এবং গ্রেফতারকৃতদের আশু মুক্তির জন্যও জোর দাবী জানানো হয়।
ঘ) সভায় স্বৈরতন্ত্র ও মাফিয়াতন্ত্রের পতনের দাবীতে এবং মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তম’এর খেতাব বাতিলের সরকারি অপচেষ্টার প্রতিবাদে আগামী বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারি বরিশাল বিভাগ বাদে দেশের সকল মহানগর ও জেলায় প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠানের কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়। পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী অনুযায়ী আগামী বৃহস্পতিবার ১৮ ফেব্রুয়ারি বরিশাল সদরে আয়োজিত সভায় বরিশাল বিভাগের সকল জেলা বিএনপি ও অঙ্গ দল সমূহকে যোগদানের আহ্বান জানানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *