জায়েদ খানের পর্নোগ্রাফি মামলায় কারাগারে অভিনেতা জামাল পাটোয়ারী

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: সোশ্যাল মিডিয়ায় মিথ্যা ও মানহানিকর পোস্ট করায় অভিনেতা জামাল পাটোয়ারীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। মামলার পর জামাল পাটোয়ারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বর্তমানে জামাল কারাগারে।

১২ আগস্ট রাজধানীর তেজগাঁও থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৫ ও ২৯ ধারাসহ ২০১৮ সালের পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে এ মামলা করেন জায়েদ খান। মামলায় আসামি করেছেন অভিনেতা জামাল পাটোয়ারীকে। মামলার পর জামাল পাটোয়ারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

১৪ আগস্ট জামাল পাটোয়ারীকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। এ সময় ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনের জন্য তাকে সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। অন্যদিকে তার আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম ইলিয়াস মিয়া জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

মামলার বাদী জায়েদ খান বলেন, ১৭ জুন আমি ফেসবুক ব্রাউজ করার সময় দেখতে পাই জামান পাটোয়ারী নামে ফেসবুক আইডি থেকে আমার নামে মিথ্যা ও মানহানিকর পোস্ট করে। তখন আমি বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখিনি। পরবর্তীতে জামান পাটোয়ারী আবারও সোশ্যাল মিডিয়ায় আমার নামে কুৎস রটালে আমি ২ জুলাই তেজগাঁও থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি।

এরপরও জামান পাটোয়ারী এমন কাজ থেকে বিরত না থেকে এখন পর্যন্ত ফেসবুক ও বিভিন্ন ইউটিউব চ্যানেলসহ সোশ্যাল মিডিয়ায় আমার নামে ইচ্চাকৃতভাবে আক্রমণাত্মক মিথ্যা কথাবার্তা লিখে ও ভিডিওয়ের মাধ্যমে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *