জনমত জরিপে এগিয়ে বাইডেন, আশাবাদী ট্রাম্প

নিউজ দর্পণ ডেস্ক : নির্বাচনের তিন দিন বাকি থাকতে হিসাব বলছে প্রায় সাড়ে সাত কোটি মার্কিনি এবার আগাম ভোট দিয়ে রেকর্ড করেছেন। আর মার্কিন জনমত জরিপ বলছে ডেমোক্রেটিক দলীয় প্রার্থী জো বাইডেনের জয়ের পূর্বাভাসের কথা। জো বাইডেনকেও বেশ আত্মবিশ্বাসী মনে হচ্ছে। যদিও যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সর্বাধিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের দাবি করে পুনরায় ভোট পাওয়ার আশা করছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সংবাদমাধ্যম বিবিসি ও সিএনএন এ খবর জানিয়েছে।

মার্কিন নির্বাচন আগামী ৩ অক্টোবর। মার্কিন গণমাধ্যমগুলো বলছে, এরই মধ্যে রেকর্ড সংখ্যক সাত কোটি ৩০ লাখের বেশি মার্কিনি আগাম ভোট দিয়েছেন। রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতেই আগাম ভোট পড়েছে পাঁচ লাখের অধিক।

এদিকে এবার মার্কিন জরিপগুলোর বেশিরভাগই ডেমোক্রেটিক প্রার্থী জো বাইডেনের পক্ষে পূর্বাভাসের কথা বলছে। সিএনএন বলছে, রিপাবলিকান প্রার্থী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে ১২ পয়েন্টে এগিয়ে আছেন বাইডেন। এবিসি নিউজ ও ওয়াশিংটন পোস্ট বলছে, ট্রাম্পের সঙ্গে ৫৩-৪১ ব্যবধানে এগিয়ে বাইডেন। ফক্স নিউজ ও রয়টার্স বলছে, ট্রাম্পের চেয়ে সাত থেকে আট পয়েন্টে এগিয়ে বাইডেন।

এ ছাড়া নিউইয়র্ক টাইমস, পিউ রিসার্চ সেন্টার ও সিবিএস নিউজের জনমত জরিপের চিত্রটাও বাইডেনের পক্ষেই।

অন্যদিকে, রাজধানী ওয়াশিংটনের ট্রাম্প হোটেলের সামনে ট্রাম্প বিরোধী স্ট্যাচু তৈরি করেছেন শিল্পীরা। তাঁদের অবস্থানও বাইডেনের পক্ষে।

এদিকে, বাইডেনের সহযোদ্ধা ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রার্থী কমলা হ্যারিসও থেমে নেই নির্বাচনী প্রচারে।

ভোটের ‘সুইং স্টেট’ ফ্লোরিডায় ব্যস্ত সময় পার করলেন ডেমোক্র্যাটিক দলীয় প্রার্থী জো বাইডেনও।

ফ্রান্সে ছুরি হামলায় তিনজনের মৃত্যুর ঘটনায় ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে উগ্রপন্থিদের সহিংতার বিরুদ্ধে যুদ্ধের ঘোষণা দিয়েছেন বাইডেন।

ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পকে নিয়ে ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যেই নির্বাচনী সমাবেশ করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সব ছাপিয়ে সুরের মূর্ছনা আর করতালিতে তাঁদের স্বাগত জানান সমর্থকেরা।

সমাবেশে ট্রাম্প বলেন, মার্কিন ইতিহাসে রেকর্ড ৩৩ দশমিক ১ শতাংশ অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে তিনি সফল। বারো শতাংশ থেকে দেশের অর্থনীতিকে তিনগুণ করার জন্য মার্কিনিদের পুনরায় সমর্থন পাওয়ার আশা জানান ট্রাম্প।

এদিকে মার্কিন গণমাধ্যমগুলো বলছে, শহরের চিত্র যাই হোক, গ্রামীণ এলাকায় ডোনাল্ড ট্রাম্পের রয়েছে বিশাল ভোট ব্যাংক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *