খুলনায় পুলিশের সঙ্গে পাটকল শ্রমিকদের সংঘর্ষে আহত ২০

নিউজ দর্পণ, খুলনা : খুলনায় বন্ধ হয়ে যাওয়া রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

আজ সোমবার সকাল ১১টার দিকে শ্রমিকেরা মহাসড়ক অবরোধ করতে গেলে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে নারীসহ কমপে ২০ জন শ্রমিক ও তিনজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

অবিলম্বে বন্ধকৃত ২৫ রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল রাষ্ট্রীয় মালিকানায় চালু, আধুনিকায়ন করা, অবসরপ্রাপ্ত, কর্মরত, বদলি, অস্থায়ী সব শ্রমিকের বকেয়া পাওনা এককালীন পরিশোধ করাসহ ১৪ দফা দাবিতে আজ বেলা ১১টা থেকে সম্মিলিত নাগরিক পরিষদের উদ্যোগে আটরা শিল্পাঞ্চলের খুলনা-যশোর হাইওয়েতে অবরোধ কর্মসূচি পালন করেন শ্রমিকরা। পরে পুলিশ এসে লাঠিপেটা করে তাদের উঠিয়ে দেয়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন শ্রমিকেরা।

পাটকল রায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট কুদরত-ই-খুদা বলেন, পুলিশের আচরণ আজ বর্বর ছিল। তারা আমাদের সঙ্গে চরম অপমানজনক আচরণ করেছে। আমাদের শ্রমিকদের লাঠিপেটা করেছে।

তিনি বলেন, পুলিশের লাঠি চার্জে নারীসহ কমপে ২০ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন। তাদেরকে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে চারজন শ্রমিককে পুলিশ তুলে নিয়ে গেছে।

এর আগে সকাল ১০টায় ইস্টার্ন জুট মিলের গেটে পাটকল রায় সম্মিলিত নাগরিক নেতারা ও শ্রমিকেরা একত্র হয়ে সমাবেশ করেন। পরে তারা খুলনা-যশোর হাইওয়ের আটরা শিল্পাঞ্চলে তিন ঘণ্টা পথ অবরোধ করেন।

এ সময় খুলনামুখী গাড়ি আটকা পড়ে। এ সময় ঘটনাস্থলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিশেষ করে পুলিশের ব্যাপক উপস্থিতি ছিল। তারা পরে শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনা করে অবরোধ উঠিয়ে নেওয়ার অনুরোধ করেন। কিন্তু শ্রমিকরা তা মানতে রাজি হননি। পরে শ্রমিকদের ওপর লাঠিপেটা করে এবং ধাওয়া-পাল্টা শুরু হয়। একপর্যায়ে শ্রমিকদের স্টার জুট মিলের ভেতরে ঢুকিয়ে দেয় পুলিশ। তবে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) ডিসি নর্থ মোল্লা জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, সংঘর্ষে পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *