কৃষক আন্দোলন : মোদিকে দোষ দিয়ে আইনজীবীর আত্মহত্যা

নিউজ দর্পণ ডেস্ক : ভারতের কৃষকদের জন্য নিজের জীবন উৎসর্গ করে এক আইনজীবী আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। আত্মহত্যার আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ্যে চিরকুট রেখে গেছেন এই আইনজীবী।
গতকাল রোববার দিল্লির উপকণ্ঠে তিকরি সীমান্তে কৃষকদের আন্দোলন স্থলের কয়েক কিলোমিটার দূরে বিষপানে আত্মহত্যা করেন এই আইনজীবী। ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, আত্মহত্যাকারী আইনজীবী অমরজিৎ সিংয়ের বাড়ি পাঞ্জাব রাজ্যের ফাজলিকা জেলার জালালাবাদে।
পুলিশ জানিয়েছে, রোববার (২৭ ডিসেম্বর) তিকরি সীমান্তে তাকে বিষপান করা অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে তাকে দ্রুত রহতাকের একটি হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
আইনজীবী অমরজিৎ সিং বিষপানের আগে একটি চিরকুট রেখে গেছেন। তাতে তিনি লিখেছেন, আইন বাতিলের দাবিতে আন্দোলরত কৃষকদের সমর্থনে তিনি তার ‘জীবন উৎসর্গ করছেন’, যাতে করে সরকার জনগণের আওয়াজ শুনতে বাধ্য হয়।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ্য করে তিনি লিখেছেন, সাধারণ মানুষ কৃষকদের পছন্দ করেন। তিনটি ‘কালো’ কৃষি আইন দিয়ে তাদের সাথে ‘প্রতারণা’ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী মোদি ‘মানুষের আওয়াজ শুনুন’।
তবে পুলিশ বলছে, চিঠিটি গত ১৮ ডিসেম্বর লেখা। এটি আসলেই তার লেখা কি না তা যাচাই করা হচ্ছে। ভারতে গত এক মাসের বেশি সময় ধরে কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে আন্দোলন করছেন লাখ লাখ কৃষক। এই আন্দোলনের প্রতি সর্মথন জানিয়ে এর আগে আরও দুটি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।
চলতি মাসের শুরুর দিকে সিঙ্ঘু সীমান্তে ৬৫ বছরের এক শিখ পুরোহিত নিজের গায়ে গুলি করে আত্মহত্যা করেন। ‘কৃষকদের কষ্ট সহ্য করতে না পেরে’ তিনি আত্মহত্যা করছেন বলে আত্মহত্যার আগে লিখে যাওয়া চিরকুটে জানান।
তার কয়েকদিন পর পাঞ্জাবের বাথিন্দায় আন্দোলন ফেরত ২২ বছরের এক কৃষক আত্মহত্যা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *