করোনার বুলেটিন বন্ধ’ না সপ্তাহে ২ দিন প্রচারের আহবান কাদেরের

নিউজ দর্পণ,ঢাকা: দেশে নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থের সংখ্যা এবং এ সংক্রান্ত আপডেট তথ্য নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রতিদিনের অনলাইন বুলেটিন একেবারে বন্ধ না করে সপ্তাহে ২ দিন প্রচারের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ বুধবার সিলেট জোন, বিআরটিএ ও বিআরটিসি’র কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এ আহ্বান জানান। ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মতবিনিময় সভায় যুক্ত হন।

তিনি বলেন, ‘করোনা সংক্রমণ, মৃত্যুসহ প্রতিদিন স্বাস্থ্য বিভাগের আপডেট বন্ধ হলে সংক্রমণ বিস্তারে জনমানুষের মাঝে শৈথিল্য দেখা দিতে। পাশাপাশি গুজবের ডালপালা বিস্তারের আশংকাও থেকে যাবে। তাই বিষয়টি বাস্তবতার নিরিখে বিবেচনায় নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ করছি।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘করোনার এসময়ে সরকার জনসমাবেশ বা কোনও ধরনের সমাগম সংক্রমণ রোধের স্বার্থে বন্ধ ঘোষণা করেছে। কোনও ধরনের অনিয়ম কিংবা হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে সরকার দ্রুততার সাথে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এ নিয়ে মানববন্ধন ও রাজনৈতিক কর্মসূচি করোনার সংক্রমণকে উৎসাহিত করতে পারে।’

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যে কোনও মামলার সন্দেহভাজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে এবং এসময়ে সকলকে ধৈর্য্য ও সহনশীলতা প্রদর্শনের আহ্বানও জানান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা ‘ক্লান্ত’ এবং স্বাস্থ্যের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্ল্যানিং অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট) ডা. সানিয়া তাহমিনা ঝোরা ‘আইসোলেশনে’- এ কারণে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত বুলেটিন সাময়িক বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মো. খুরশীদ আলম।

তবে নিজের ক্লান্তি কিংবা অসুস্থতার কথা গণমাধ্যমের কাছে অস্বীকার করে অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বলেছেন, ‘আমি একটি চিঠি দিয়েছি, সেটা ঠিক। কিন্তু আমি কোথাও আমার অসুস্থতার কথা বলিনি। আমি চিঠিতে বলেছি, মানুষ নিয়মিত মৃত্যুর খবর নিতে নিতে ক্লান্ত। অনেককে বাজে মন্তব্য করতেও শোনা যায়। সেজন্য লাইভ বুলেটিন না করে প্রেস রিলিজের মাধ্যমে করোনা সংক্রান্ত তথ্য সরবরাহ করা যায় কিনা- আমি সেটি বলেছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *