করোনার উৎস তদন্তে ১৪ জানুয়ারি চীনে পৌঁছাবে ডব্লিউএইচওর বিশেষজ্ঞ দল

নিউজ দর্পণ ডেস্ক : কোভিড-১৯-এর বৈশ্বিক মহামারির উৎস তদন্তে আগামী ১৪ জানুয়ারি চীনে পৌঁছাবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) একটি আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ দল। চীন কর্তৃপক্ষ আজ সোমবার এ তথ্য জানিয়েছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে।

এতদিন চীন কর্তৃপক্ষের অনুমতি না পাওয়ায় ডব্লিউএইচওর ১০-সদস্যের বিশেষজ্ঞ দলটির চীনে গিয়ে দীর্ঘ প্রতিক্ষীত তদন্ত কার্যক্রম শুরু করতে দেরি হচ্ছিল। চীনে প্রথম নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণের শুরু হওয়া নিয়ে তদন্ত করবে ডব্লিউএইচওর বিশেষজ্ঞ দল। এদিকে ডব্লিউএইচওর তদন্ত দলটির চীনে প্রবেশে বিলম্ব হওয়ার বিষয়টিকে ‘ভুল বোঝাবোঝি’ বলছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ডব্লিউএইচওর তদন্ত দলের চীনে পৌঁছার তারিখটি জানিয়েছে চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন। তবে, চীনে তদন্ত দলের কর্মসূচির বিষয়ে বিস্তারিত জানায়নি কমিশন।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের উহান শহরে ২০১৯ সালের শেষদিকে সর্বপ্রথম নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের খবর পাওয়া যায়। চীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, তারা করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ার পর প্রাথমিক পদক্ষেপ নিতে দেরি করায় ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়েছিল।

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নেতৃত্বাধীন বিশেষজ্ঞ দলটিকে চীনে ‘স্বচ্ছ’ তদন্ত পরিচালনা করার আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সেইসঙ্গে ডব্লিউএইচওর বিশেষজ্ঞ দল চীনে পৌঁছার আগে চীনের বিজ্ঞানীদের প্রাথমিক তদন্তের অনুমতি দেওয়ায় জাতিসংঘের সংস্থাটির সমালোচনাও করেছে দেশটি।

রয়টার্স বলছে, ডব্লিউএইচওর তদন্ত দল আসার আগে আগে চীন কর্তৃপক্ষ নিজেদের মতো করে পরিস্থিতি গোছানোর চেষ্টা করছে। করোনার মহামারি কখন ও কোথায় শুরু হয়েছিল, তা নিয়েই নতুন করে বক্তব্য দেন চীনের জ্যেষ্ঠ কূটনীতিক ওয়াং ওয়াই। তিনি বলেন, ‘অনেক অনেক গবেষণায়’ দেখা গেছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উহান ছাড়াও আরো অনেক অঞ্চলে দেখা গিয়েছিল।

বিশ্বের বহু দেশ যেখানে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি নিয়ে হিমশিম খাচ্ছে, চীন ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই রেখেছে।

তবে, এখনো চীন পুরোপুরি করোনামুক্ত হতে পারেনি। চীনের মূল ভূখণ্ডে গতকাল রোববার গত পাঁচ মাসের মধ্যে সর্বাধিক ১০৩ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়। এ ছাড়া চীনের রাজধানী বেইজিং ঘিরে রাখা হেবেই প্রদেশে নতুন করে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে বলে রয়টার্স জানিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *