এখনই ক্যামেরার সামনে দাঁড়াবেন না পপি

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়িকা সাদিয়া পারভীন পপি। দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে নিয়মিত কাজ করছেন তিনি। অবশ্য এরমধ্যে খানিকটা বিরতিও ছিল পপির। এরপর আবার নতুন উদ্যমে ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছেন তিনি। এরই মাঝে গত মার্চ মাস থেকেই খুলনায় অবস্থান করছেন এই চিত্রনায়িকা। করোনা পরিস্থিতির কারণে আর ঢাকায় ফেরা হয়নি পপির। এদিকে গত মাসে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন খোদ নায়িকা। এখন শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলেও আরো কিছুদিন খুলনাতেই থাকতে চান ‘কুলি’ খ্যাত এ নায়িকা।

তিনি বলেন, ঢাকায় শিগগিরই ফেরা হচ্ছে না। কারণ, ঢাকার অবস্থা এখনো খুব একটা ভালো নয়। মানুষ ঘর থেকে বের হলেও করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা তো কমছে না। আমার আত্মীয়-স্বজন যারা ঢাকায় আছেন, তাদের অনেকের আক্রান্তের খবর পাচ্ছি। তাই আপাতত খুলনাতেই থাকতে চাই। ঢাকার বাইরে থাকলেও এফডিসিতে চলমান নানা ইস্যু নিয়ে সরব পপি। ১৯ সংগঠন থেকে চিত্রনায়ক জায়েদ খান ও খল অভিনেতা মিশা সওদাগরকে বয়কট নিয়েও কথা বলেছেন তিনি।

এ ছাড়াও শিল্পীদের মধ্যে নানা রেষারেষি নিয়েও মুখ খোলেন এই নায়িকা। তিনি বলেন, এফডিসিতে কী হচ্ছে এটা তো গণমাধ্যমের বরাতে দেশের সবাই জানতে পারছেন। এখানে ক্রাইসিস কি নিয়ে এটাও সবার জানা। তবে আমি মনে করি, সবচেয়ে বড় ক্রাইসিস হচ্ছে সম্পর্কের। আগে কত সুন্দর দিন কাটাচ্ছিলাম আমরা। মান্না ভাই, ওমর সানী ভাই, রিয়াজ, ফেরদৌস, শাকিব খান, মৌসুমী, শাবনূর, পূর্ণিমা- সবাই নিজ নিজ অবস্থান থেকে ইন্ডাস্ট্রিকে লিড দিয়েছেন। তখন আমাদের মধ্যে ভালো কাজের প্রতিযোগিতা থাকলেও রেষারেষি ছিল না। কেউ কারও পেছনে লাগেনি। কারও আড়ালে কারও বদনাম হতো না। সেই গোছানো সম্পর্কগুলো নষ্ট করে দিলো জায়েদ। সে শিল্পী সমিতির চেয়ারে বসার পরই শুরু হলো নানান দ্বন্দ্ব।

‘লাক্স আনন্দ বিচিত্রা’ সুন্দরী প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে পরিচিতি লাভ করেন পপি। এরপর ১৯৯৭ সালে সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘আমার ঘর আমার বেহেশত’ ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে পা রাখেন পপি। কিন্তু তার প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র ‘কুলি’। প্রথম সিনেমায় অভিনয় করেই দর্শকের ভালোবাসা কুড়ান তিনি। এরপর ‘বিদ্রোহ চারিদিকে’, ‘লাল বাদশা’, ‘বস্তির রানী সুরাইয়া’, ‘গঙ্গাযাত্রা’, ‘গার্মেন্টস কন্যা’সহ অনেক সিনেমায় অভিনয় করেন। স্বীকৃতি হিসেবে একাধিকবার পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *