ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হলেন মুশফিকুর রহীম

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: সাকিব আল হাসান ও মেহেদী হাসান মিরাজের পর বাংলাদেশে ইউনিসেফের নতুন শুভেচ্ছা দূত হলেন মুশফিকুর রহীম। জাতিসংঘের এ অঙ্গসংগঠনের সঙ্গে শিশু অধিকার প্রচারের জন্য কাজ করবেন মুশফিক। রোববার এক বিবৃতিতে শুভেচ্ছাদূত হিসেবে এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানের নাম ঘোষণা করে ইউনিসেফ।

শুভেচ্ছাদূত মনোনীত হয়ে মুশফিকের প্রতিশ্রুতি, ‘শিশু অধিকার এবং ইউনিসেফের কাজ- দুটোই আমার হৃদয়ের খুব কাছাকাছি এবং নিজের কথাগুলো ছড়িয়ে দিতে এটি আমার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সুযোগ। একজন ক্রিকেট খেলোয়াড় এবং একজন বাবা হিসেবে আমি শিশুদের জন্য, বিশেষ করে সবচেয়ে ঝুঁকির মুখে থাকা শিশুদের জন্য ইতিবাচক পরিবর্তন আনার জন্য মানুষকে একত্রিত করতে যথাসাধ্য চেষ্টা করবো।

ইউনিসেফ তাদের বিবৃতিতে জানায়, শিশুদের অধিকার এবং যুবসমাজকে প্রভাবিত করে এমন বিষয়গুলো সম্পর্কে সচেতনতা তৈরিতে সহায়তা করবেন মুশফিক। শিক্ষার অধিকার, দারিদ্র্য ও বৈষম্যের প্রভাব এবং সহিংসতা, নির্যাতন ও শোষণের বিরুদ্ধে শিশুদের সুরক্ষার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে কাজ করবেন তিনি।

ইউনিসেফ বাংলাদেশের প্রতিনিধি টোমো হোজুমি মনে করেন, নিজ কর্মে বাংলাদেশের মানুষের মনে নতুন করে সাড়া ফেলতে পারবেন মুশফিক। তিনি বলেন, ‘মুশফিকুর রহীম জাতীয় দূত হিসেবে ইউনিসেফে যোগদান করায় আমরা তাকে আন্তরিক অভ্যর্থনা জানাতে চাই। শিশু অধিকারের প্রতি দৃঢ় প্রতিশ্রুতির পাশাপাশি তার সম্মান, মেধা ও উপস্থিতি দিয়ে তিনি বাংলাদেশের মানুষের হৃদয় ও মনে জায়গা করে নেবেন।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সাল থেকে শিশুদের অধিকার প্রচারের জন্য ইউনিসেফের সঙ্গে জাতীয় দূত হিসেবে কাজ করে আসছেন সাকিব আল হাসান। আর ইউনিসেফের ‘ইয়ুথ অ্যাডভোকেট’ হিসেবে আছেন মিরাজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *