আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়ল ১ মাস

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: দেশে করোনা পরিস্থিতির কারণে অবশেষে আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় ১ মাস বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত করা হয়েছে।
আজ সোমবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এনবিআর কার্যালয়ে প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মনিম এ কথা জানান।

এনবিআর চেয়ারম্যান জানান, করোনা পরিস্থিতির কারণে রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় এক মাস বাড়ানো হলো।
এর আগে গত রবিবার (২৯ নভেম্বর) সকালে এনবিআর চেয়ারম্যান জানিয়েছিলেন, চলতি বছর আয়কর রিটার্ন জমা দেয়ার সময় বাড়ছে না। রিটার্ন জমা দেয়ার শেষ দিন ৩০ নভেম্বরই থাকছে। এর একদিন পর এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসলো এনিবিআর।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, যারা নির্ধারিত সময়ে আয়কর রিটার্ন দিতে পারবেন না, তারা সংশ্লিষ্ট কর অফিসে আবেদন করতে পারবেন। তবে ২ শতাংশ জরিমানার বিষয়টি বাধ্যতামূলক নয়।
তিনি বলেন, সঠিক সময়ে গ্রাহকরা কেন রিটার্ন জমা দিতে পারেননি সেটার যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারলে জরিমানা মওকুফ করা হবে। কমিশনারের কাছে সেই কারণ যৌক্তিক মনে না হলে জরিমানা গুণতে হবে।
চলতি বছর আয়কর দিবসে প্রতিপাদ্য করা হয়েছে- স্বচ্ছ ও আধুনিক করসেবা প্রদানের মাধ্যমে করদাতাবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতকরণ।
এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, আয়কর রিটার্ন কীভাবে আরও সহজ করা যায়, সে বিষয়ে কাজ চলছে। করদাতাদের রিটার্ন সহজ করতে এ বছর থেকে এক পাতার রিটার্ন করা হয়েছে।
তিনি বলেন, করোনা মহামারির কারণে এ বছর আয়কর দিবসের র‌্যালি হচ্ছে না। তবে ভার্চুয়ালি আলোচনা সভা হবে।
আয়কর আইন অনুযায়ী, উপকর কমিশনার করদাতার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রিটার্ন জমা দিতে ২ মাস সময় দিতে পারেন। তবে করদাতাকে সেক্ষেত্রে ২ শতাংশ জরিমানা দিতে হয়।
আবু হেনা জানিয়েছেন, গেল বছরের ২৬ নভেম্বরের চেয়ে এ বছরের ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত ৬৩ হাজার ১৯৯টি রিটার্ন বেড়েছে। তবে একই সময়ে ১৯৩ কোটি টাকা আয়কর কমেছে। এ বছর ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত রিটার্নের সংখ্যা ছিল ১৩ লাখ ২০ হাজার ৮২৫টি। গেল বছর একই সময়ে রিটার্ন সংখ্যা ছিল ১২ লাখ ৫৭ হাজার ৬২৬টি।
এ বছর ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত ২ হাজার ৩৮৭ কোটি টাকা কর পরিশোধ হয়েছে। গেল বছর একই সময়ে কর পরিশোধ হয়েছিল ২ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *