আল কায়েদা ও আইএস করোনাকে জৈবিক অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করতে চাইছে: জাতিসংঘ

নিউজ দর্পণ ডেস্ক : ইউএন রিপোর্টে বলা হয়, সংগঠন দুটি প্রচারণা চালাচ্ছে এই বলে, করোনা হচ্ছে পশ্চিমাদের ওপর খোদার গজব।
আল কায়েদা ও ইসলামিক স্টেটের পক্ষ থেকে এও প্রচার করা হচ্ছে, করোনা এসেছে আল্লাহর সৈনিক হিসেবে। এই সৈনিক অবিশ্বাসী ও ইসলামের শত্রুদের খতম করবে। বিগত বছরগুলোতে যারা মুসলমানদের ক্ষতি করেছে, তাদেরও বিনাশ করবে করোনা নামের এই সৈনিক।
করোনাভাইরাস নিয়ে মিথ্যা প্রচার ঠেকানোর আহ্বান জানিয়ে প্রকাশিত রিপোর্টে জাতিসংঘ আরও বলেছে, করোনা মহামারী শুরুর পর সামাজিক গণমাধ্যমে সন্ত্রাসবাদী ও উগ্রপন্থীরা মিথ্যা তথ্য দিয়ে হিংসাত্মক কর্মকাণ্ডকে উস্কে দিচ্ছে।
ইউনাইটেড নেশনস ইন্টাররিজিওন্যাল ক্রাইম এন্ড জাস্টিস রিসার্চ ইন্সটিটিউট (ইউএনআইসিআরআই) বুধবার এ রিপোর্টটি প্রকাশ করে।
রিপোর্টে আরও বলা হয়, টেররিস্ট গ্রুপগুলো করোনা মহামারীকে নিজেদের সমর্থন বানানোর হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে। এমনকী সরকারের প্রতি মানুষের আস্থা যাতে কমে, এমন কর্মকাণ্ডেও লিপ্ত আল কায়েদা ও আইএস। তারা এতোটাই বেপরোয়া, করোনাকে বায়োলজিক্যাল উয়েপন হিসেবে ব্যবহার করতেও দ্বিধা করছে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *