আফগানিস্তানে ভিসার আবেদন করতে গিয়ে পদদলিত হয়ে মৃত্যু ১৫

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: আফগানিস্তানে পদদলিত হয়ে কমপে ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ওই ঘটনায় আরও অনেকেই আহত হয়েছে। এক প্রাদেশিক মুখপাত্র জানিয়েছেন, পাকিস্তানের ভিসার আবেদনের জন্য কয়েক হাজার মানুষ জড়ো হয়েছিলেন। সে সময় পদদলিত হয়ে বহু হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। খবর আল জাজিরার।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিহতদের মধ্যে ১১ জনই নারী। দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় পাকিস্তানি কনস্যুলেটের কাছে ওই পদদলনের ঘটনা ঘটেছে।

জালালাবাদ শহরের ভিসা সেন্টারে সাধারণত ভিসার আবেদন গ্রহণ করা হয়। কিন্তু সম্প্রতি ওই ভিসা সেন্টারের বদলে একটি স্টেডিয়ামে এই কার্যক্রম চলছিল। সেখানে অনেক মানুষ ভিড় করায় পদদলনের ঘটনা ঘটেছে।

করোনা মহামারির কারণে ৭ মাস ধরে পাকিস্তানের ভিসার আবেদন বন্ধ ছিল। সম্প্রতি তা পুনরায় চালু করা হয়েছে। জালালাবাদের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কনস্যুলেট অফিস থেকে টোকেন সংগ্রহ করতে হুড়োহুড়ি শুরু করেন আবেদনকারীরা। ফলে অনেক মানুষ পদদলনের শিকার হয়। কর্তৃপ বলছে, লোকজনের ভিড় নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছিল না।

প্রাদেশিক কাউন্সিলের সদস্য সোহরাব কাদেরি বলেন, দুর্ঘটনায় ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ১১ জনই নারী। এছাড়া বয়স্ক আরও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। অপর দুই প্রাদেশিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পাকিস্তানের ভিসার জন্য টোকের সংগ্রহ করতে ওই স্থানে জড়ো হয়েছিলেন ৩ হাজারের বেশি আফগান নাগরিক।

প্রতি বছরই আফগানিস্তান থেকে বহু মানুষ প্রতিবেশী পাকিস্তানে ভ্রমণ করে থাকেন। তারা তাদের স্বজনদের সঙ্গে দেখা করতে যান বা চিকিৎসা, চাকরি অথবা দেশের সহিংসতা থেকে বাঁচতে পাকিস্তানে পাড়ি জমান।

প্রাদেশিক গভর্নরের মুখপাত্র আত্তাউল্লাহ খোগিয়ানি এএফপি নিউজ এজেন্সিকে বলেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে আজ সকালে (বুধবার) কয়েক হাজার মানুষ ভিসার আবেদন করতে একটি ফুটবল স্টেডিয়ামে জড়ো হয়েছিলেন। সেখানেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *