অবসরে গেলেন সুরেশ রায়না

নিউজ দর্পণ ডেস্ক: শনিবার অবসরের ঘোষণা দেন সুরেশ রায়নাও। ৩৩ বছর বয়সী বাঁহাতি এই স্পিন অলরাউন্ডারকে মনে রাখবে টিম ইন্ডিয়া। এমন নয় যে অধিনায়ক ধোনির পছন্দের খেলোয়াড় ছিলেন বলে সুযোগ পেতেন ভারত দলে। পরিসংখ্যান সাক্ষী দেয় কতটা গুরুত্বপূর্ণ ছিলেন রায়না। পারফরম্যান্স দিয়েই ধোনির একাদশের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হয়ে ওঠেন তিনি। রায়নার ওয়ানডে অভিষেক ২০০৫-এ। সবশেষ ওয়ানডে খেলেন ২০১৮তে। ২২৬ ম্যাচে ব্যাট হাতে ৫৬১৫ রান, বল হাতে ৩৬ উইকেট ও ক্যাচ নিয়েছেন ১০২টি।
তার ক্যারিয়ারের সময়ে যা ভারতীয়দের মধ্যে সর্বোচ্চ। ২০০৬ সালে টি-টোয়েন্টি অভিষেকের পর ২০১৮ পর্যন্ত ৭৮ ম্যাচ খেলেছেন রায়না। ২৯.১৮ গড়ে ১৬০৫ রান ও ১৩ উইকেট ও ৪২টি ক্যাচ নিয়েছেন তিনি। টেস্ট অভিষেকে সেঞ্চুরি পাওয়া ১৫ ভারতীয় ব্যাটসম্যানের একজন রায়না।

২০১০ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অভিষেকের পর ২০১৫ পর্যন্ত মাত্র ১৮ ম্যাচ খেলেছেন তিনি। ৭৬৮ রানের সঙ্গে উইকেট ১৩টি। ৫ নম্বর কিংবা এর নিচের ব্যাটিং পজিশনে ন্যূনতম ৪০০০ রান করেছেন এমন ব্যাটসম্যানদের তালিকায় দ্বিতীয় সেরা স্ট্রাইকরেট রায়নার। রায়নার ক্যারিয়ারের ‘পিক টাইম’ ছিল ২০০৮-১৫ পর্যন্ত। এই সময়ে ওয়ানডেতে ভারতের হয়ে সর্বাধিক ছক্কা (১১৬) হাঁকান তিনি। এই সময়ে ওয়ানডেতে রান তাড়ায় অপরাজিত থাকা ব্যাটসম্যানদের তালিকায় ধোনির পরেই ছিলেন রায়না, ৩৭ ইনিংসে ধোনি ২৫ বার আর ৪৭ ইনিংসে রায়না ২৩ বার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *