অন্যায় ও অসত্যের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে ন্যায় ও সুন্দরকে প্রতিষ্ঠা করতে হবে: মির্জা ফখরুল

নিউজ দর্পণ, ঢাকা: ঢাকেশ্বরী কেন্দ্রীয় পূজামনন্ডপে গিয়ে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ শনিরবার বিকালে পূজামন্ডপ পরিদর্শন করে দলের প থেকে তিনি শুভেচ্ছা জানান।
মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপির প থেকে আপনাদেরকে শারদীয় শুভেচ্ছা জানাতে এখানে এসেছি। আমরা জানি, এবার কোবিড-১৯ এর জন্য আপনাদের অনেক বিধি নিষেধের মধ্য দিয়ে এই পূজা পালন করতে হচ্ছে। দূর্গা উৎসবের যে শারদীয় উৎসব সেই উৎসবের অনেক কিছু আপনারা পালন করতে পারছেন না। আমরা বিশ্বাস করি যে, দেবীদূর্গা যে অর্বিভূত হয়েছিলেন পৃথিবীতে অসুরকে পরাজিত করবার জন্যে, অন্যায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছিলেন, অসত্যকে দূর করে সত্যকে প্রতিষ্ঠা করবার জন্য। এখনো সেই সেই অন্যায়ের বিরুদ্ধে, সেই অসত্যের বিরুদ্ধে, অসুন্দরের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে লড়াই করে আমাদেরকে ন্যায় ও সুন্দরকে প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা আপনাদের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করছি। এই কথা বলতে চাই যে, বাংলাদেশের মানুষ অসম্প্রদায়িক মানুষ। বাংলাদেশে হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খৃষ্টান আমরা সবাই এক সাথে বাস করছি। ১৯৭১ সালের যে গণতন্ত্রের চেতনা সেই চেতনাকে ধারণ করে আমরা এদেশে বাস করছি। ঢাকেশ্বরী কেন্দ্রীয় পূজামন্ডপে পৌঁছলে মহানগর সার্বজনীন পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক কিশোর রঞ্জন মন্ডল, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক নেতা তাপস কুমার পাল, কাজল দেবনাথসহ পূজা উদযাপন কমিটির নেতারা বিএনপি মহাসচিবকে স্বাগত জানান।

পরে বিএনপি মহাসচিব নেতৃবৃন্দকে নিয়ে দূর্গাদেবীর প্রতিমার কাছে কিছু সময়ে অবস্থান করেন। তিনি ভক্ত-পূণ্যার্থীদেরও শারদীয় শু্ভচ্ছো জানান। এ সময়ে বিএনপির হাবিব উন নবী খান সোহেল, গৌতম চক্রবর্তী, ইশরাক হোসেন, অমলেন্দু দাশ অপু, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, রমেশ দত্ত, মহানগরের কাজী আবুল বাশার, মীর আশরাফ আলী আজম, ছাত্র দলের ইকবাল হোসেন শ্যামলসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *